আমির খানের বডিগার্ড থেকে অভিনেতা হয়ে উঠার গল্প - রনিত রায়

আমির খানের বডিগার্ড থেকে অভিনেতা হয়ে উঠার গল্প - রনিত রায়

পুরো নাম রনিত বোস রায়
জন্ম ১১ই অক্টোবর, ১৯৬৫
জন্মস্থান নাগপুর, ভারত
পেশা অভিনেতা, ব্যবসায়ী


বর্তমানে ভারতীয় ধারাবাহিকে সর্বোচ্চ পারিশ্রমিক পাওয়া অভিনেতাদের একজন রনিত রায়। কিন্তু অনেক কষ্ট করে বলিউডে নিজের অবস্থান তৈরি করেছেন তিনি। কেডি পাঠক খ্যাত এই অভিনেতা একসময় সুপারস্টার আমির খানের বডিগার্ডও ছিলেন। এরপর অক্লান্ত পরিশ্রমের ফল স্বরূপ দর্শকের কাছে পেয়েছেন খ্যাতি আর ভালোবাসা। অভিনেতা রণিত রায় হিন্দি টিভি ধারাবাহিক এবং বলিউড সিনেমা দুটোতেই অভিনয় করেই নিজের প্রতিভার স্বাক্ষর রেখেছেন। আদালত টিভি শো'তে কেডি পাঠক চরিত্রে অভিনয় করে বিশেষ জনপ্রিয়তা পেয়েছেন এই অভিনেতা। ১৯৯২ সালে তার অভিষেক ঘটে "জান তেরে নাম" চলচ্চিত্রের মধ্য দিয়ে। সিনেমাটি তখন সুপারহিট হয়। সুপার হিট ছবি উপহার দেওয়ার পরও ৬ মাস কোন কাজ পাননি এই অভিনেতা। তারপর ১৯৯৬ সাল পর্যন্ত চার বছর তিনি বড় কোনো কাজ না পাওয়ায় ছোটখাটো কিছু কাজ করে যাচ্ছিলেন। হাল ছেড়ে দেননি একেবারে।


 একের পর এক টিভি শো, হিন্দি সিরিয়াল চালিয়ে যাচ্ছিলেন। নায়ক হতে না পারলেও পরবর্তীতে ভিলেনের চরিত্রে অভিনয় করে বেশ ভাল সাড়া পেয়েছেন। মুম্বাইতে এসেছিলেন তারকা হতে। অভিনেতা নায়ক হতে নয়। আমির খানের দেহরক্ষী হিসেবে কাজ করেছেন দুই বছর। একসময় নিজেই বডিগার্ড ছিলেন। আর এখন সেই সব সুপার স্টারদের নিরাপত্তা দেয়ার জন্য এজেন্সি চালু করেছে এই তারকা। অভিনয়ের পাশাপাশি নিরাপত্তা ব্যবস্থার প্রতিষ্ঠানের মালিক রনিত রায়। তিনি এস সিকিউরিটি এন্ড প্রটেকশন এজেন্সির মালিক। যা বর্তমানে সালমান খান, অমিতাভ বচ্চন, মিঠুন চক্রবর্তী, শাহরুখ খান এবং আমির খানের মতো বলিউড অভিনেতাদের সুরক্ষা দেয়। শুরুটা যেমনই হোক পরিশ্রম মানুষকে কখনো নিরাশ করে না। এক সময় তার উত্থান নিশ্চিত যার জ্বলন্ত উদাহরণ  কেডি পাঠক ওরফে অভিনেতা রণিত রায়।